কার্যক্রম শুরু : ২৫ জুলাই, ২০১৮

সকল মানুষের মধ্যে ভালোবাসার সৃষ্টি করতে পারলে সুন্দর সমাজ গড়ে উঠবে। সে সমাজে মানুষে কোন বিভেদ থাকবে না। সকলে আবদ্ধ থাকবে আত্মার বন্ধনে। সমস্ত দ্বিধা, দ্বন্দ্ব-সংঘাত দূর হবে সেই মিলন বাণীর সুরে। রক্তদানের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে আসবে নতুন জীবনের স্পন্দন। এই লক্ষ্যে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে “বাঁধন, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ ইউনিট”।“একের রক্ত অন্যের জীবন, রক্তই হোক আত্মার বাঁধন” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৮ সালে ২৫ই জুলাই বুধবার বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও রক্তদান কর্মসূচির মাধ্যমে বাঁধন(স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন) -এর ৬৭ তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং বাঁধন ঢাকা সিটি জোনের ৯ তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান “বাধন, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ পরিবার” হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে।এরপর ২০২০ সালে ৫ই মার্চ বৃহস্পতিবার বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচির মাধ্যমে বাঁধন(স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন) -এর ১৩৩ তম এবং বাঁধন ঢাকা সিটি জোনের ৯ তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান “বাঁধন, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ ইউনিট” হিসেবে স্বীকৃতি পায়।আমাদের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হল প্রতিটি মানুষ যেন তার নিজের রক্তের গ্রুপ জানে এবং স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসে। আমরা সেদিনই নিজেদের মধ্যে কিছুটা আত্মতৃপ্তি পাবো যেদিন অন্তত মোহাম্মদপুর এর প্রতিটি মানুষ তার নিজের রক্তের গ্রুপ জানবে এবং অন্যকে রক্তদানে এগিয়ে আসবে। একজনের রক্তদান বাঁচাতে পারে একটি প্রাণ এবং ফুটিয়ে তুলতে পারে তার পরিবারের মুখে মূল্যবান হাসি। আমাদের স্বপ্ন হলো এই বাংলায় রক্তের অভাবে আর একটি জীবন প্রদীপ যেন নিভে না যায়। শুধুমাত্র ছাত্র-ছাত্রী নয় সব বয়সের কর্মজীবী, পেশাজীবী এবং খেটে খাওয়া শ্রমিক মজুরসহ সর্বস্তরের মানুষ তাদের নিজেদের রক্তের গ্রুপ জানবে এবং স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসবে। এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে সকলের সহযোগিতায় এগিয়ে যেতে চায় আমাদের “বাঁধন, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ ইউনিট”।আমাদেরকে ইউনিট হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে, বাঁধনের পথচলায় যুক্ত হওয়ার দান করায় “বাঁধন, কেন্দ্রীয় পরিষদ” কে এবং “বাঁধন, ঢাকা সিটি জোন” কে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে কার্যক্রম সমূহ তুলে ধরছি।

আমাদের কার্যক্রম সমূহ:-* ক্যাম্পাসে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচীর আয়োজন (৫ বার)।* কর্মীদের নিয়ে কর্মশালা আয়োজন।* শ্রেণিকক্ষে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের রক্তদানের ব্যাপারে উদ্বুদ্ধকরণ।* ক্যাম্পাসে বাঁধনের পোস্টার ও লিফলেট বিতরণ।* প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়।* রক্তদানে উৎসাহিতকরণ ও সচেতনমূলক কর্মসূচী পালন।* ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান।* ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে লিফলেট প্রদানের মাধ্যমে সচেতন করা।* প্রথম বছর পূর্তি উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন।* বাঁধন, কেন্দ্রীয় পরিষদের সাথে যুক্ত হয়ে বাঁধন এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিক উদযাপন।* চলমান করোনা পরিস্থিতিতে বিপদগ্রস্ত কিছু কর্মীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান।

এক নজরে:-
মোট রক্তদান : ৫১১ ব্যাগ।
নতুন রক্তদাতা : ১৫৮ জন।
বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় : ৮৭০ জন।

:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
:
: